লঞ্চের মধ্যে শিশুর জন্ম-নাম দেওয়া হলো পুতুল

0 ৭৭

আলোকিত লংগদু ডেস্ক:

রাঙ্গামাটির হরিণা হতে ছেড়ে আসা লঞ্চের মধ্যে  ভূমিষ্ঠ হলো কন্যা শিশুর ।ভূমিষ্ঠ কন্যা শিশুকে পুতুল নামে নামকরণ করেছে রাঙ্গামাটির মালিক সমিতির বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহণ) সংস্থা, রাঙামাটি জোন’র চেয়ারম্যান মঈনুদ্দীন সেলিম।

সোমবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে হরিণা হতে ছেড়ে আসা এমএল শফি লঞ্চের মধ্যে দুপুর ১২:৩০ মিনিটের সময় উক্ত কন্যা শিশুটি  ভূমিষ্ঠ হয়।  এরপর দুপুর ২টায় লঞ্চটি রাঙামাটির রিজার্ভবাজার লঞ্চঘাটে পৌঁছলে, মালিক সমিতির পক্ষ থেকে নবজাতকের মায়ের হাতে পুতুলের জন্য উপহার স্বরূপ নগদ অর্থ, কাপড়, বেবি সেট , তুলে দেওয়া হয়।পাশাশি লঞ্চ মালিক সমিতির চেয়ারম্যান ঘোষণা দেন, এখন থেকে উক্ত মা ও মেয়ে পুতুলের জন্য আজীবন লঞ্চে চলাচল ফ্রী থাকবে। তখন মা সাথী আক্তারের হাতে ফ্রী চলাচলের জন্র টোকেন তুলে দেওয়া হয়। এসময় নবজাতকের মা সাথী আক্তার রাঙামাটি লঞ্চ মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহণ) সংস্থা, রাঙামাটি জোন’র চেয়ারম্যান মঈনুদ্দীন সেলিম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. আব্দুল গণি, কার্যনির্বাহী সদস্য মো. নাজিম উদ্দীন, গিয়াস উদ্দীন আদর, সহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহণ) সংস্থা, রাঙামাটি জোন’র চেয়ারম্যান  মঈনুদ্দীন সেলিম বলেন, লঞ্চে কন্যা শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়া মালিকের সৌভাগ্য বয়ে আনার অন্যতম লক্ষণ হিসেবেই আমরা বিবেচনা করে থাকি। তিনি বলেন পূর্বেও লঞ্চে সন্তান প্রসবের মতো ঘটনা ঘটেছে। আমরা মালিক সমিতির পক্ষ থেকে নবজাতকদের নাম দিয়ে থাকি। তাই এই শিশুর মায়ের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে কন্যা শিশুটির নাম পুতুল রাখেন। এরপর লঞ্চ মালিক মঈনুদ্দীন সেলিম লঞ্চে উপস্থিত সকলকে মিষ্টিমুখ করান।

এদিকে রাঙামাটি লঞ্চ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকেও উক্ত নবজাতক ও তার মাকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে এবং তাদের হাতে উপহার সামগ্রী পৌছে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন সংগঠনটির নেতা শিক্ষানবিস আইনজীবী আব্দুর রাজ্জাক।

 

আপনার ইমেইল প্রদর্শন করা হবে না।