লংগদুতে মৎস্য বাঁধ ভেঙ্গে মাছ ছেড়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা

0 ৯৬

।। মোঃ গোলামুর রহমান ।।

রাঙ্গামাটি লংগদু উপজেলার বেশীর ভাগ জনসাধারণ অসহায় ও দরিদ্র শ্রেণির হওয়ায় কৃষি কাজ, মাছ চাষ, জেলে পেশায় নিয়োজিত। অনেকেই পাহাড়ী এলাকায় ঝিরি, জলশায়, ডেবায় ও পুকুরে মাছ চাষ করে ভালো লাভবান হওয়ায় এখন এই পেশায় আগ্রহী হচ্ছে লোকজন। উপজেলার এক মাছ ব্যবসায়ীর বাঁধ ভেঙ্গে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে উপজেলার মৎস্য খামারিদের মাঝে।
মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দিনগত রাতে বাগাচত্বর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আমির হোসেন (মোল্লা)”র মৎস্য বাঁধটি দুর্বৃত্তরা ভেঙ্গে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

তিনি বলেন প্রতিদিনের ন্যায় গত রাতে আমি বাঁধ পাহারা দিয়ে ঘুমাতে যাই, কিন্তু রাত প্রায় ১২টার সময় হঠাৎ পানির শব্দ পাই। তখন প্রথমে আমি মনে করি বন্য হাতি পানিতে নেমেছে, তাই আমি তখন উচ্চস্বরে শব্দ করি বুজতে চাই হাতি কি না। কিন্তু কোন পরিবর্তন না দেখে বাঁধের পাশে যাই, গিয়ে দেখি বাঁধের নালাটা কেউ ভেঙ্গে দেয়, তখন আমি মানুষের পায়ের ছাপ ও দেখতে পাই। পরে সকালে আমি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, মুরুব্বি, মৎস্য কর্মকর্তা সহ অনেককে বিষয়টি দেখাই।

মৎস্য বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় এতে করে আমার প্রায় ১৫লক্ষ টাকার মাছ নদীতে চলে গেছে। আমি এ ব্যাপারে লংগদু থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেছি। তিনি আরো বলেন গত কিছুদিন আগেও এ বাঁধে রুই, কাতলা, মাগুর, সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা চেড়েছি। এখন আমি চাই সঠিক তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীকে আইনের আওতায় রেখে শাস্তি প্রধান করা হোক। এরকম অন্যায় কাজে যেনো আর কেউ সাহস করতে না পারে।

এ বিষয় লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মোঃ নুর বলেন, উক্ত বিষয়টি সম্পর্কে আমাদেরকে জানানো হয়েছে এবং থানায় সাধারণ ডায়রি করেছেন বাঁধের মালিক। আমরা তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

আপনার ইমেইল প্রদর্শন করা হবে না।