বিজিবির পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ অবৈধ কাঠ জব্দ

alokitolangadu@gmail.com

0 ১৮

মো.গোলামুর রহমান,

রাঙ্গামাটির লংগদু ও বাঘাইছড়ি উপজেলায় বিজিবি কর্তৃক পৃথক দুটি  অভিযানে ৪,২০,০০০/- (চার লক্ষ বিশ হাজার) টাকার সেগুন ও গামারী কাঠ জব্দ করা হয়েছে।

গত ১৮ নভেম্বর সকাল ১০টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঘাইছড়ি উপজেলার মসজিদ বাড়ি বিজিবি ক্যাম্প এলাকায় মসজিদবাড়ি নামক স্থানে চোরাকারবারীরা পাচারের উদ্দেশ্যে বন থেকে কাঠ কেটে নদীর পানির নিচে ডুবিয়ে রেখেছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে  রাজনগর (গুলশাখালী) জোন কমান্ডার লেঃ কর্নেল শাহ্ মোঃ শাকিল আলম, এসপিপি উক্ত স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করার নির্দেশনা প্রদান করেন।
এ প্রেক্ষিতে সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, বিজিবিএমএস এর নেতৃত্বে ০১টি বিশেষ টহল দল গত ১৮ ও ১৯ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ (দুই দিন ব্যাপী) উক্ত স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন। পরিচালিত অভিযানে বিজিবি কর্তৃক ১১০ ঘনফুট সেগুন ও ৪০ ঘনফুট গামারী সর্বমোট ১৫০ ঘনফুট কাঠ আটক করেন।

এছাড়াও, ১৯ নভেম্বর ২০২৩ তারিখ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, চরুয়াখালী বিজিবি ক্যাম্প এলাকায় চরুয়াখালী নামক স্থানে চোরাকারবারীরা পাচারের উদ্দেশ্যে বন থেকে কাঠ কেটে নদীর পানির নিচে ডুবিয়ে রেখেছে খবর পায় বিজিবি।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে রাজনগর জোন কমান্ডার লেঃ কর্নেল শাহ্ মোঃ শাকিল আলম, এসপিপি উক্ত স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করার নির্দেশনা প্রদান করেন। এ প্রেক্ষিতে চরুয়াখালী বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার হাবিলদার মোঃ ‍দুলাল খাঁন এর নেতৃত্বে চরুয়াখালী বিজিবি ক্যাম্প হতে একটি বিশেষ টহল দল উক্ত স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেন। বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে চোরাকারবারীরা কাঠ রেখে পালিয়ে যায়। পরিচালিত অভিযানে বিজিবি কর্তৃক উক্ত স্থান হতে ৭০ ঘনফুট সেগুন কাঠ আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃত কাঠসমূহ পাবলখালী ও রাঙ্গীপাড়া ফরেস্ট অফিসে হস্তান্তর ও মামলার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

এ প্রসংগে রাজনগর জোন কমান্ডার জানান, অবৈধ কাঠ চোরাচালানের বিরুদ্ধে চলমান আভিযান কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং ভবিষ্যতে আরো জোরদার করা হবে।

আপনার ইমেইল প্রদর্শন করা হবে না।