জমজমাট মাইনীমুখ বাজারের কোরবানীর পশুর হাট

0 ৬২

।। ওমর ফারুক মুছা ।।
দেশী গরু, ছাগল যার মধ্যে বেজালের লেশমাত্র নাই এমন পশু সবাই কিনতে চায়। হোক সেটা কোরবানির জন্য অথবা লালন-পালনের জন্য। সে দিক থেকে রাঙামাটির জেলার মধ্যে লংগদু উপজেলায় গৃহস্থের পালিত গরু ছাগলকে বেশি পছন্দ করে জেলা এবং জেলার বাহিরের লোকজন। তাই বিভিন্ন দূরদূরান্তর থেকে পাইকার ও গৃহস্থ লোকজন লংগদু উপজেলার মাইনীমুখ বাজারে ছুটে আসেন তাদের পছন্দনীয় গরু, ছাগল, মহিষ কেনা-বেচা করার জন্য। এবাজারে তুলনামূলক কম দামে কোরবানির জন্য হোক বা পালন করার জন্য পশু ক্রয় করতে পারে।

যা হোক আর এক সপ্তাহ পরেই কোরবানির ঈদ।

শনিবার (২৫ জুলাই) মাইনীমুখ বাজার ছিল হাটের দিন। তাই জমজমাট হয়ে উঠেছে এবাজারের কোরবানির পশুর হাট।

বাজারের ইজারাদার সূত্রে জানাগেছে, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার গরু ছাগলের বেচা বিক্রি অনেক বেড়েছ। বিভিন্ন দূর এলাকা থেকে পাইকার ও গৃহস্থরা এসেছে মাইনীমুখ বাজার থেকে তাদের পচন্দের পশু কিনতে।

স্থানীয় কয়েকজন গরু বিক্রেতার সাথে কথা বলে জানা গেছে, আজকের বাজারে গরু উঠেছে বেশি। পাইকারও এসেছে অনেক। গরুর দাম বলছেন কম।
দেখা গেছে নেপালী (শংকর) বলে ২টি বলদ গরুর ছিল আজকের বাজারের আকর্ষণ। প্রতিটি গরুর দাম হাকা হয়েছে আড়াই লাখ টাকা করে। এছাড়া এই বাজারে নিম্নে চল্লিশ থেকে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত গরু বেচা-কেনা হচ্ছে। দাম যাই হোক শেষ পর্যন্ত লোকজন তাদের পচন্দনীয় কোরবানীর পশু ক্রয় করতে পারছেন এটাই সবছেয়ে বড় কথা।

আপনার ইমেইল প্রদর্শন করা হবে না।