আলোচিত কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যায় – প্রেমিক গ্রেফতার

0 ৩৮৮

আলোচিত কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যায় – প্রেমিক গ্রেফতার

মোঃ গোলামুর রহমান,লংগদু(রাঙ্গামাটি)

রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলার বাইট্টাপাড়া তিনটিলা এলাকায় নিজ বসত ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে জেসমিন আক্তার (১৯),পিতা প্রবাসী জাহাঙ্গীর আলম জাবেদ,মাতা আনোয়ারা নামে কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সেই আলোচিত ঘটনায় ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ভিকটিম জেসমিন আক্তারের মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে, অভিযুক্ত প্রতিবেশী প্রেমিক ফরহাদ কে গ্রেফতার করেছে লংগদু থানা পুলিশ।

ফরহাদ লংগদু সদর ইউনিয়নের বাইট্টাপাড়া তিনটিলা এলাকার একই গ্রামের ওসমান গনির ছেলে।

লংগদু থানা পুলিশ ও এলাকাবাসীর তথ্যমতে জানাযায়, ফরহাদ ও জেসমিন দীর্ঘদিন যাবত প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন। মোবাইলের কল লিস্টের সুত্র ধরে জানাযায়, মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগেও ছেলে মেয়ে মোবাইল ফোনে কথা বলে।এর একটু পরেই মেয়েটি আত্মহত্যা করে। এই সুত্রের সত্যতা নিশ্চিত করে, লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশিদ অভিযান পরিচালনা করে ফরহাদকে গ্রেফতার করেন।

জেসমিনের মা বলেন, প্রতিবেশী ফরহাদ প্রায় সময় আমার মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাবের মাধ্যমে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছে। এসব বিষয়ে ছেলের পরিবারকেও বার বার বলা হলেও তারা কোনরকম ব্যবস্থা নেয়নি। মৃত্যুর আগেও আমার মেয়ের সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলে ফরহাদ। তখন আমি বাসায় ছিলাম না। বাসায় এসে দেখি আমার মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়েছে। প্রশাসনের মাধ্যমে আমি আমার মেয়ের হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে লংগদু ইউনিয়নের বাইট্টাপাড়া তিনটিলা নিজের বসত ঘরে পরিবারের অজান্তে ঘরের দরজা জানালা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দেয় জেসমিন। সে লংগদু কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন।

লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ হারুনুর রশিদ বলেন, ঘটনাটি তদন্ত সাপেক্ষে মোবাইল ফোনের তথ্য ও পরিবার এবং এলাকাবাসীর দেওয়া তথ্যমতে তাদের প্রেমের সম্পর্কের কথা উঠে আসে। পরবর্তীতে মেয়ের মা বাদী হয়ে লংগদু থানায় অভিযোগ দায়ের করলে,অভিযোগের ভিত্তিতে লংগদু থানা পুলিশ প্রেমিক ফরহাদকে গ্রেফতার করে। এর আগে ভিকটিমের মরদেহ ময়না তদন্ত করে, পরিবারের নিকট লাশ বুঝুয়ি দেওয়া হয় । এদিকে প্রেমিক কে গ্রেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার ইমেইল প্রদর্শন করা হবে না।