লংগদু প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ইউএনও মাইনুল আবেদীন’কে বিদায় সংবর্ধনা

৬৮

সাকিব আলম মামুন

লংগদু, রাঙামাটি

রাঙামাটির লংগদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাইনুল আবেদীন এর বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করেছে লংগদু প্রেসক্লাব।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকাল ১১টায় লংগদু প্রেসক্লাবে এই বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। দীর্ঘ দেড় বছর লংগদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সফলতার সহিত দায়িত্ব পালন শেষে বদলি জনিত কারণে ঢাকায় যোগদান করবেন।

এ সময় লংগদু প্রেসক্লাবের অন্যতম সদস্য সাংবাদিক আরমান খান এর সঞ্চালনায় ও প্রেসক্লাব সভাপতি এখলাস মিঞা খান এর সভাপতিত্বে সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লংগদু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মাইনুল আবেদীন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মীর সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী ঝান্টু, লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ আরিফুল আমিন, প্রকৌশলী ড. জিয়াউল ইসলাম মজুমদার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা যোবায়ের হোসেন, লংগদু প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক মুছা, লংগদু সরকারি মডেল ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক খন্দকার হাসান আলী, উপজেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকবৃন্দ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

বিদায় অনুষ্ঠানে লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরিফুল আমিন বলেন, ইউএনও মাইনুল আবেদীন একজন দক্ষ ও বিচক্ষণ কর্মী, তিনি কাজের প্রতি খুবই আন্তরিক। আমরা সব সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পাশে থেকে দেখেছি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড। তিনি শুধু একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নয়, সকল শ্রেণি পেশার মানুষের সঙ্গে এত আন্তরিকভাবে সুন্দর আচরণ করেছেন যে কেউ তার এই উদারতায় তাকে শুধু শ্রদ্ধা করতেন। উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা কিংবা রাজনৈতিক ব্যক্তির কথা বলেন সকল শ্রেণি পেশার মানুষের সঙ্গে তার একটি আন্তরিক সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এক আবেগঘন বক্তব্য প্রদান করেন, লংগদু আমার হৃদয়ে থাকবে, আমি দেশের যে প্রান্তেই থাকিনা কেন লংগদুবাসীর পাশে থাকবো। দায়িত্ব পালন কালে সব সময় সবার জন্য আমার দুয়ার খোলা ছিল। আমি চেষ্টা করেছি সবার সাথে মিলে মিশে কাজ করার, লংগদু প্রেসক্লাব আমাকে পূর্ণাঙ্গ সহযোগিতা করেছে তাই প্রেসক্লাবের সকল সাংবাদিক ও লংগদুবাসী’কে ধন্যবাদ জানাই।

পরে লংগদু প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে বিদায়ী সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয় বিদায়ী সংবর্ধিত অতিথি মাইনুল আবেদীন’র হাতে।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।