লংগদু উপজেলার একটুকরো এখন চট্টগ্রামে।

১৩৩

ডেস্ক রিপোর্ট:
লংগদু ইউনিটি ক্লাব,চট্টগ্রাম, একঝাঁক তরুন উপজেলার যে সকল লোকজন চাকুরি ব্যবসা পড়ালেখা করার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ হৃদপিণ্ড খ্যাত বানিজ্যিক শহর চট্টগ্রামে পাড়ি জমিয়েছে তাদের সকলকে একসাথে ঐক্যবদ্ধ থাকার জন্য এবং দুঃখে সুখে একে অপরের সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে গঠন হয় লংগদু ইউনিট ক্লাব চট্টগ্রাম। যার মাধ্যমে উপজেলার সকল শ্রেণির মানুষ তাদের পরিচিত সকলের সাথে কৌশল বিনিময় করতে সহায়ক হচ্ছে। দীর্ঘ পরিকল্পনার পর অত্যন্ত গোছালো ও বিভিন্নরকম সেবামূলক কার্যক্রমের পরিকল্পনা নিয়ে পথ চলা শুরু করে এলইউসিসি ক্লাব টি।
যার মাধ্যমে চট্টগ্রামে বসবাস এলাকার বিভিন্ন পেশার মানুষের সাথে যোগাযোগ ও সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাবে সংগঠনটি। প্রাথমিক ভাবে শুধু মাত্র অসুস্থ রোগীর জন্য রক্তদান ও চট্টগ্রামে বসবাসরত এলাকার লোকজনের যোগাযোগ ও ঐক্যবদ্ধ থাকার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গত জুমাবার আনন্দমুখর পরিবেশে নগরীর অক্সিজেন মোড়স্থ হোটেল জামান এর কনফারেন্স হল রুমে একটি পরামর্শ সভা করা হয়। আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে এম এ আমিন এর সঞ্চালনায় ও কামাল হোসেন এবং জাকির সরকার এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত সভায় তিন মাসের জন্য ১৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করেন। পরামর্শক মন্ডলীর সভাপতি সহ উপজেলার সিনিয়র বিভিন্ন পেশায় থাকা সদস্যবৃন্দ।
মোঃ আব্দুর রাজ্জাককে আহবায়ক কমিটির সভাপতি ও এম এ আমিন কে সদস্য সচিব করে এ কমিটি অনুমোদন দেন পরামর্শক মন্ডলীর
সদস্যবৃন্দ।
আহবায়ক কমিটি তত্বাবধানে জন্য দুইসদস্য বিশিষ্ট মনিটরিং বোর্ড গঠণ করা হয়।
এতে মোঃ আলমগীর (বগাচত্তর)
ও ডা. ইউসুফ আলী (বগাচত্তর) কে দায়িত্বভার দেয়া হয়।
পূর্ণ আহবায়ক কমিটির সদস্যবৃন্দ হলো।
**. আহবায়ক
মোঃ আব্দুর রাজ্জাক (রাবেতা)
**. সদস্য সচিব
মোঃ এম এ আমিন (জারুল বাগান)
**.সহঃ সদস্য সচিব
মোঃ কামাল হোসেন (সোনাই)
**. অর্থ সচিব
মোঃ জাকির সরকার ( গুলশাখালী)
**. সদস্য,
১. আলমগীর হোসেন ( কালাপাকুজ্জা)
২. আইয়ুব আলী ( কালাপাকুজ্জা)
৩. ডা. নুরুল ইসলাম ( ভাইবোন ছড়া)
৪. কামরুর হাসান কাদের ( বাইট্টা পাড়া)
৫. আঃ লতিফ
৬. মোঃ আলী হোছাইন (জারুল বাগান)
৭. ফজল করমি।
৮. মোঃ আলাউদ্দিন
৯. নাইমুর রহমান
১০. মনির হোসেন।
১১. রিদওয়ান ( গাঁথাছড়া)
আগামী তিন মাসের মধ্যে আহবায়ক কমিটির আদলে সকল সদস্য সংগ্রহের মাধ্যমে একটি পূর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করার জন্য প্রস্তুতি নিতে বলা হয়।
এবং চট্টগ্রামস্থ লংগদু উপজেলার সকলকে সদস্য ফরম পুরনের মাধ্যমে চট্টগ্রামে থাকা প্রায় ৩৫০০ জনগনের একটি ডাটাবেস পূর্ণাঙ্গ করা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় এই অরাজনৈতিক, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটির নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম অবস্থানরত লংগদু উপজেলার বিভিন্ন পেশাজীবি জনগন।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।