লংগদুতে ৩৬ আনসার ব্যাটলিয়নের ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

৬১

লংগদুতে ৩৬ আনসার ব্যাটলিয়নের ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

আলোকিত লংগদু ডেক্স।।
‘শান্তি শৃঙ্খলা উন্নয়ন নিরাপত্তায় সর্বত্র আমরা’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় বাইট্টাপাড়াস্থ ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়নের ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

বৃহষ্পতিবার(১০ মার্চ), উপজেলার ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হয়। এসব কর্মসূচীর মধ্যে ছিলো সকাল ৬টায় জাতীয় ও ইউনিটের পতাকা উত্তোলন, এরপর সকলের মঙ্গল কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মুনাজাত করা, দুপুর বারটায় প্রধান অতিথির মাধ্যমে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্বোধন, র‌্যালী, কেক কাটা, প্রীতিভোজ, বিকালে খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ করা।

দুপুরে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর চট্টগ্রাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপমহাপরিচালক, মোঃ সাইফুল­াহ্ রাসেল প্রধান অতিথি হিসেবে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে কর্মসূচী উদ্বোধন করেন। এরপরে আগত অতিথিদের নিয়ে ১৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটেন ও মধ্যাহ্ণভোজে অংশগ্রহণ করেন।

তারপূর্বে প্রধান অতিথি সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম হওয়ায় আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। তিনি বলেন বর্তমান মহাপরিচালক মহোদয়ের বিচক্ষণ নেতৃত্বে আনসার বাহিনী এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ ও জাতির কল্যাণে আমাদের বাহিনীর প্রত্যেক সদস্যকে কাজ করে যেতে হবে। এবং বাহিনীর সুনামকে সমুজ্জ্বল রাখতে হবে।
এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, লংগদু উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ঝান্টু, বাইট্টাপাড়া ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়ন পরিচালক প্রদীপ চন্দ্র দত্ত, দীঘিনালা জামতলী ২১আনসার ব্যাটালিয়ন পরিচালক ফেরদৌস আহম্মদ, চট্টগ্রাম ফয়স’লেক ৩০ আনসার ব্যাটালিয়ন পরিচালক,মোঃ সাইফুজ্জামান, খাগড়াছড়ি কুমিল­াটিলা ৩৭আনসার ব্যাটালিয়নের জিয়াউর রহমান জিয়া, সুবলং হাজাছড়া ২৯ আনসার ব্যাটালিয়ন পরিচালক মোঃ সাইফুদ্দিন, লংগদু সেনা জোনের এ্যাডজুট্যান্ট ক্যাপ্টেন রেজোয়ান, রাঙামাটি আনসার-ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক ম্যানেজার নিলো রানী বড়ুয়া, লংগদু প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ এখলাসে মিঞা খান সহ বিভিন্ন গন্যমান্য ও আনসার ব্যাটালিয়নের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও সদস্যগন উস্থিত ছিলেন।
বিকালে ব্যাটালিয়নের খেলোয়াড়দের মধ্যে খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং সব শেষে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।