লংগদুতে ব্যাপক হারে কুকুরের দেহে টিকাদান (এমডিভি) কার্যক্রম বিষয়ে অবহিতকরন সভা

৫৯

।। ‘দৈনিক আলোকিত লংগদু’ ডেক্স।।
আগামি ২০২২ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে জলাতঙ্ক মুক্ত করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে জাতীয় জলাতঙ্ক নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল কর্মসূচী বাস্তবায়ন চলছে। উক্ত কর্মসূচী বাস্তবায়নের আওতায় রাঙামাটির লংগদু উপজেলার সাতটি ইউনিয়নরে মধ্যে ৪ জন করে ২৮ জন এবং উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ৫ দিনব্যাপী কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন বলে অবহিতকরণ সভায় জানানো হয়।
মঙ্গলবার (২৯ডিসেম্বর), কর্মসূচীর আওতায় লংগদু উপজেলায় ব্যাপক হারে কুকুরের দেহে টিকাদান (এমডিভি) কার্যক্রম বিষয়ে অবহিতকরন সভা অনুষ্টিত হয়েছে। সকালে লংগদু উপজেলা মিলনায়তনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃক অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন, লংগদু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাইনুল আবেদীন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক সরকার।
বক্তব্য রাখেন, লংগদু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ অরবিন্দ চাকমা, ঢাকা স্থাস্থ্য অধিদপ্তর রোগনিয়ন্ত্রণ শাখার সিডিসি ডাঃ সায়েদ মোহাম্মদ উল­াহ। এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ক্যাথোয়াই প্রু মারমা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মীর সিরাজুল ইসলাম ঝান্টু, আনোয়ারা বেগম, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা কৃষিবিধ শুভাশিষ কর্মকার সহ সকল ইউপি চেয়ারম্যানগন ও স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য সহকারীগন উপস্থিত ছিলেন।
জলাতঙ্ক একটি ভয়ংকর মরণব্যাধী, এ রোগে মৃত্যুর হার শতভাগ। জলাতঙ্ক রোগটি মূলত কুকুরের কামড় বা আচঁড়ের মাধ্যমে ছড়ায়। তবে প্রায় ৯৫ শতাংশই ছড়ায় কুকুর থেকে বলে অবিহিতকরণ সভায় জানান বক্তারা।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।