বান্দরবান রোয়াংছড়ি সেনা হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা জাতীয় প্রেস ক্লাবে মানববন্ধন পালন।

৩৯

ডেস্ক রিপোর্টঃ

গত ১২ মার্চ দেশমাতৃকার জন্য মানবিক সহযোগিতার কল্পে সেনাবাহিনীর মেডিকেল ক্যাম্প পাহাড়ীদের চিকিৎসা দিতে যাওয়ার সময় কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) সন্ত্রাসীদের অতর্কিত গুলিতে শহীদ মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার নাজিম উদ্দিন শহীদ হন। বান্দরবান জেলার রোয়াংছড়িতে এই ঘটনা ঘটে। যার প্রতিবাদে অদ্য ১৬ মার্চ (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২-৩০ ঘটিকায় ঢাকা জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বর সেনা মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদ ঢাকা মহানগর শাখা।
আমরা শহীদের রক্ত বৃথা যেতে দেব না। এই স্লোগানে মানববন্ধন শুরু করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান কাজী মজিবর রহমান, প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার আলকাছ আল মামুন ভূঁইয়া, কেন্দ্রীয় মহাসচিব আলমগীর কবির, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযুদ্ধা মনিরুজ্জামান, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শেখ আহম্মেদ রাজু, ঢাকা মহানগর সভাপতি আব্দুল হামিদ রানা, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শাহাজান সাজু, আইন সম্পাদক এ্যাড মো. আলম খান।

বক্তারা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সেখানে সেনাবাহিনী সন্ত্রাসীদের হাতে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয় সেখানে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায়? আমরা সরকারকে আহ্বান করবো পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাস দমনে সেনাক্যাম্প বৃদ্ধিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হোক। গত ১ বছরে বান্দরবানে ২জন সেনা কর্মকর্তাকে হত্যা করা হয়েছে৷ এভাবে পার্বত্য চট্টগ্রামে সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীকে হত্যা করলে অচিরেই রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রণ হারাবে এবং আমরা হারাবো রাষ্ট্রের আয়তনের এক-দশমাংশ পার্বত্য চট্টগ্রাম।

সুতরাং বলতে চাই পার্বত্য চট্টগ্রামের সন্ত্রাস মোকাবেলায় সীমান্ত নিরাপত্তা জোরদার করা হোক এবং সেনা হত্যার বিচার করা হোক। যাতে ভবিষ্যতে আমাদের দেশ প্রমিক কোনো সেনা অফিসার হত্যাকাণ্ডের শিকার না হয়।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।