পার্বত্য কাব্যের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে লংগদুতে মনোরম সাহিত্য আড্ডা অনুষ্ঠিত

৮১

।।মোঃ গোলামুর রহমান।।

বাংলা সাহিত্য প্রচার প্রসার ও নতুন লেখক সৃষ্টিতে, কাজ করবো একসাথে” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে, পার্বত্য কাব্যের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলা শাখার উদ্যোগে মাইনীমুখ ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার হল রুমে ১৯ ই ডিসেম্বর (শনিবার) এক প্রাণবন্ত সাহিত্য আড্ডা এবং আলোচনা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। আলচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলা শাখার সম্মানিত প্রধান উপদেষ্টা, মাইনীমুখ ইসলামিয়া আলিম মাদরাসার সুপার মাওলানা ফেরদৌস আলম সাহেব। সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লংগদু উপজেলার প্রবীণ এবং বরেণ্য কবি ও সাহিত্যিক, লংগদু প্রেসক্লাব সভাপতি এখলাস মিঞা খান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলা শাখার সভাপতি – হাফেজ মাওলানা মুফাচ্ছেল হক মা’রুফ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় এবং উপস্থাপনায় ছিলেন- পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলার সাধারণ সম্পাদক, নুরুল আলম, এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মাওলানা জাহাঙ্গির আলম, তারুণ্যের কলম দ্বিমাসিক পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুল হাসান সোহাগ,আলোর পথে শিল্পী গোষ্ঠী লংগদু এর প্রধান পরিচালক হাফেজ মাওলানা হাবিবুল্লাহ আফসারী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ বিভাগের ছাত্র এস এম ফরহাদ, আব্দুর রহমান সহ পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলা শাখার বিভিন্ন পর্যায়ের দায়িত্বশীল কবি সাহিত্যিকবৃন্দ এবং স্থানীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। উক্ত সাহিত্য সম্মেলনে বক্তারা বলেন লংগদু উপজেলায় এই ছিল প্রথম সাহিত্য সভা।এর আগে এ ধরনের সাহিত্য অনুষ্ঠান আমরা দেখিনি। পার্বত্য কাব্য লংগদু উপজেলার মাধ্যমে আজ আমরা এক ব্যতিক্রমধর্মী অনুষ্ঠান উপহার পেলাম। সাহিত্যে এই পথ বড়ই বন্ধুর,পিচ্ছিল আর কণ্টকাকীর্ণ।নানা ভয়ংকর চপেটাঘাত এই পান্থকে স্তব্ধ করে দিতে চাইবে।কিন্তু সকল বাঁধা প্রতিঘাত মাড়িয়ে সিংহসার্দুলের ন্যায় আমুল লক্ষ্যপানে অটুট থাকলে প্রকৃত সাহিত্যের সফলতার দ্বারপ্রান্তে উপনীত হওয়া সম্ভব। আলোচকরা আরো বলেন- আমাদের লংগদু উপজেলা হোক সুস্থ সাহিত্য চর্চার এক প্রস্ফুটিত বাগিচা।যে বাগিচা থেকে ফুটে উঠবে সুন্দর ও সত্যের অজস্র ফুলেরা। শেষে দোয়া মুনাজাতের মাধ্যমে উক্ত প্রাণবন্ত সাহিত্য আড্ডার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।