আনসার সদস্যগণ কর্তৃক ফায়ারিং অনুশীলনে স্থানীয় নারী আহত 

৬৬
মো. গোলামুর রহমান, লংগদু।
রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলায় করল্যাছড়ি ফায়ারিং রেঞ্জে আনসার সদস্যগণ কর্তৃক ফায়ারিং অনুশীলন পরিচালনা করা হয় ।
রবিবার (১৬এপ্রিল) ফায়ারিং পরিচালনার পূর্বে নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক প্রয়োজনীয় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে এলাকায় মাইকিং পরিচালনা, বিউগলের মাধ্যমে সতর্ককরণ, নিরাপত্তা প্রহরী নিয়োগ ও চারপাশে লালফ্লাগ স্থাপন করা হয়। পরবর্তীতে স্থানীয় পুলিশ কর্তৃক সতর্কতামূলক মাইকিং শেষে পুলিশের উপস্থিতিতে ফায়ারিং অনুশীলন পরিচালনা করা হয়।
সকল ধরনের সতর্কতা মূলক ব্যবস্থা সম্পর্কে জানার পরও ফায়ারিং রেঞ্জ হতে আনুমানিক ১.৫ কিলোমিটার দূরে নন্দিতা চাকমা নামক
একজন স্থানীয় নারী জুম চাষের জন্য উক্ত এলাকায় অবস্থানকালে ডান উরুতে গুলিবিদ্ধ হন। বিষয়টি অবগত হওয়ার সাথে সাথেই লংগদু সেনা জোন এবং আনসার ব্যাটালিয়ন কর্তৃক আহত নারীকে পরিচালক, ৩৮ আনসার ব্যাটালিয়ন তার গাড়িতে করে মাইনীমুখ ন্যাশনাল হাসপাতাল এন্ড
ডায়াগনোষ্টিক সেন্টারে নিয়ে যান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তাৎক্ষনিকভাবে সফল অস্ত্রপচারের
মাধ্যমে গুলি বের করে  এবং আহত নারী বর্তমানে সম্পূর্ণ সুস্থ্য আছেন বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এবং
স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা নিশ্চিত করেন।
 এসময় সেনাবাহিনী ও আনসারের এরূপ তাৎক্ষনিক পদক্ষেপের ফলে আহত নারীর পরিবার এবং স্থানীয় এলাকবাসী নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এছাড়াও তাৎক্ষনিকভাবে লংগদু সেনা জোন কর্তৃক আহত নারীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন এবং ফলের ঝুড়ি উপহার হিসেবে পাঠান।
এছাড়াও লংগদু সেনা জোন এবং ৩৮ আনসার ব্যাটালিয়ন তাদের সকল চিকিৎসা ব্যয় বহন করেন এবং আর্থিকভাবে সহায়তা প্রদান করেন।  উক্ত পরিবারের পরবর্তী চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় সহযোগিতার ব্যাপারে আশ্বাস প্রদান করা হয়। নিরাপত্তা বাহিনীর এরূপ তড়িৎ পদক্ষেপ স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়।

মন্তব্য বন্ধ আছে তবে ট্র্যাকব্যাক ও পিংব্যাক চালু রয়েছে।